Quantcast

গুলমার্গ, জম্মু ও কাশ্মীর

গুলমার্গ ভারতের একটি জনপ্রিয় স্কিইং গন্তব্যস্থল

গুলমার্গ শহরটি, ভারতের সুদূর উত্তর প্রান্তের রাজ্য জম্মু ও কাশ্মীরে অবস্থিত। এটি এক অতুলনীয় সুন্দর শহর, যা শীতের সময় তার স্কিইং ঢালের জন্য বিখ্যাত এবং গ্রীষ্মকালে সুন্দর তৃণভূমি ফুলে প্রাঞ্জল বলে মনে হয়।

গুলমার্গ-এর আকর্ষণ

বাবা রেশির পবিত্র আধার (সমাধি): বাবা রেশি জিয়ারাত নামেও পরিচিত, এই পবিত্র আধারটি বাবা রেশির সমাধিস্থল, ইনি একজন শ্রদ্ধেয় মুসলিম সন্ত ছিলেন। বাবা রেশি, কাশ্মীরের রাজা জৈন-উল-আবেদিন-এর সভাসদ ছিলেন। সমাধিটি প্রায় 500 বছরের পুরনো। গুলমার্গ থেকে মাত্র কয়েক কিলোমিটার দূরে অবস্থিত, জায়গাটি বেশ শান্তিপূর্ণ এবং সুন্দর এবং আপনি যদি বিনোদন চান তাহলে এই স্থানটি হল নিখুঁত।

সেন্ট মেরী চার্চ : প্রায় 100 বছর আগে এই মনোরম ক্ষুদ্র রোমান ক্যাথলিক গির্জাটি নির্মিত হয়েছিল এবং এটি তার ভিক্টোরিয়ান স্থাপত্যের জন্য পর্যটকদের মধ্যে খুবই জনপ্রিয়। গির্জাটি একটি ছোট গ্রামাঞ্চলের খ্রীষ্টান প্রার্থনা সভার মত দেখায়। এটি ধূসর বর্ণের পাথরের সঙ্গে নির্মিত এবং একটি সবুজ টালিকৃত ছাদ দিয়ে আবৃত। এটি খুবই সুন্দর এবং যে সমস্ত ভ্রমণার্থী ঐতিহাসিক ও আধ্যাত্মিকতার একটি সম্মিলিত ছাপ অন্বেষণ করতে চান তাদের জন্য অবশ্য দ্রষ্টব্য।

গল্ফিং : গুলমার্গ গল্ফ ক্লাবের গল্ফ কোর্স হল বিশ্বের বৃহত্তম সবুজ গল্ফ ক্ষেত্র এবং স্যার নেভিল চেম্বারলেইন কে.সি.বি দ্বারা ব্রিটিশ শাসনের প্রারম্ভে প্রতিষ্ঠিত ক্লাবহাউস ভবনটি ঐতিহাসিক দিক দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ। গল্ফ ক্ষেত্রটি পেশাদার ও অপেশাদারদের জন্য উন্মুক্ত। গল্ফ ক্লাবটিতে ভাড়াও উপলব্ধ রয়েছে, সুতরাং, পর্যটকরা যদি চান তবে একবার খেলার আনন্দও উপভোগ করতে পারেন। তবে, মনে রাখবেন গল্ফ ক্ষেত্রটি কেবলমাত্র গ্রীষ্মকালে সবুজাভ হয়ে ওঠে; শীতকালে এটি তুষারাবৃত থাকে।

গন্ডোলা : গন্ডোলায় চড়া এই শহরে পরিদর্শনাকারী পর্যটকদের জন্য এক আবশ্যক। এটি গুলমার্গ, কোঙ্গডোরি ও অপহারওয়াত-এর নিদারুণ সৌন্দর্য্য উপলব্ধ করায়। এটি দুটি পর্যায়ে বিভক্ত রয়েছেঃ প্রথমটি গুলমার্গ থেকে কোঙ্গডোরি যায় এবং দ্বিতীয়টি কোঙ্গডোরি থেকে অপহারওয়াত পর্যন্ত যায়। এখানে একটি চেয়ার লিফটও রয়েছে যেটি পর্যটকদের কোঙ্গডোরি থেকে মেরীর সোল্ডার পর্যন্ত নিয়ে যায়।

স্কিইং : অনেকে মনে করেন স্কিইং-এর জন্য গুলমার্গ হল ভারতের সেরা গন্তব্যস্থল। এমনকি সি.এন.এন, তার এশিয়ার সর্বোচ্চ পাঁচটি স্কি রিসর্টের তালিকায় গুলমার্গকে চতুর্থ স্থানে স্থাপন করেছে। গুলমার্গে স্কিইং সম্পর্কে এক অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিষয় হল যে, ঢালগুলি খুব একটা কঠিন নয়, যার ফলে অনভিজ্ঞদের জন্য এটি খুবই সহজসাধ্য। এগুলি ছাড়াও, এখানে আপনার প্রয়োজনীয় স্কি সরঞ্জাম ভাড়া করার জন্য প্রচুর স্কি দোকান রয়েছে। এখানে অনেক স্কি প্রশিক্ষকও রয়েছেন যারা আপনাকে সাহায্য করতে পেরে খুশী হবে।

খিলানমার্গ : উপত্যকাটি শহর থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এবং তার তৃণভূমির জন্য প্রসিদ্ধ যেগুলি বসন্তকালে ফুল দ্বারা আবৃত থাকে ও শীতকালে দারুণ স্কি-র জন্য প্রস্তাব নিবেদন করে। এই অঞ্চলের ঘিরে থাকা শৃঙ্গগুলির এক মহান দৃশ্য এখান থেকে দেখা যায়। পরিষ্কার রৌদ্রোজ্জ্বল দিনে, এখান থেকে নাঙ্গা পর্বতও দেখতে পাওয়া সম্ভব।

আলপাথের লেক : এই সুন্দর হ্রদটি অপহারওয়াত শৃঙ্গের পাদদেশে অবস্থিত। হ্রদটি সাধারণত জুন মাস পর্যন্ত, এমনকি তার পরেও বরফে জমে থাকে; এই লেকের মধ্যে বরফ খুঁজে পাওয়াটা মোটেই অস্বাভাবিক নয়। লেকের দিকে হাঁটা বেশ শ্রমসাধ্য ব্যাপার; তবে, যারা রোমাঞ্চ অনুভব করতে চান, সেইসমস্ত ব্যাক্তিদের কাছে এটি খুবই জনপ্রিয়। এই লেকটিতে পৌঁছানোর আরেকটি সহজ উপায় হল একটি ছোট টাট্টু ভাড়া করা।

ফিরোজপুর নালা : উপত্যকার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হওয়া এটি একটি পার্বত্য প্রবাহ এবং অবশেষে এটি বাহান নদীতে গিয়ে মিলিত হয়েছে। পর্যটক ও স্থানীয়দের মধ্যে এটি একটি খুবই জনপ্রিয় পিকনিক স্থল এবং গ্রীষ্মের সময়ে এটি শহরতলির এক নয়নাভিরাম দৃশ্য দেখার প্রস্তাব দেয়। লম্বা পাইন বৃক্ষ, সুন্দর তৃণভূমি সমূহ এবং তুষারাবৃত পর্বত আপনার অভিজ্ঞতাকে আরোও সমৃদ্ধ করে তুলবে। এগলি ছাড়াও, ট্রাউট মাছ ধরাও এখানে একটি জনপ্রিয় কার্যকলাপ।

গুলমার্গে বাসস্থানোপযোগী ব্যবস্থা

গুলমার্গে থাকার জায়গা সাধারণত বেশ ব্যয়বহুল। গুলমার্গ রিসর্ট ও আ্যপেল ট্রি রিসর্ট, মাঝারি মানের থাকার জায়গার জন্য ভালো। যে সমস্ত ভ্রমণার্থী বিলাসবহুলভাবে শোভনীয় স্থানে থাকতে পছন্দ করেন, তাদের জন্য খাইবার্ হিমালয়ান রিসর্ট আ্যন্ড স্পা এবং হোটেল হাইল্যান্ড পার্ক যথেষ্ট ভালো হতে পারে। বাজেট ভ্রমণকারীদের শ্রীনগর শহরের কাছাকাছি কোনও বাসস্থানের জায়গা খুঁজে নেওয় ভালো।

গুলমার্গ মানচিত্র

গুলমার্গ সম্পর্কে তথ্যাবলী

  • 2011 সালে, সি.এন.এন, তার এশিয়ার সর্বোচ্চ পাঁচটি স্কি রিসর্টের তালিকায় চতুর্থ স্থানে গুলমার্গকে স্থাপন করেছে।
  • গুলমার্গে দীর্ঘতম স্কি চালনা হল 2.213 মিটার দীর্ঘ।
  • ভগবান শিবের স্ত্রী-র নামানুসারে, শহরটি প্রকৃতপক্ষে গৌরিমার্গ নামে পরিচিত ছিল; ষোড়শ শতকের সময়ে সুলতান ইউসুফ শাহ সুন্দর ফুল দিয়ে সাজানো পথটি দেখে উদ্দীপ্ত হয়ে ওঠেন, সুলতানের দ্বারা এই গোলাপের পথটির নাম গুলমার্গ রাখা হয়।

গুলমার্গ কোথায় অবস্থিত?

শ্রীনগর থেকে প্রায় 57 কিলোমিটার দূরে, জম্মু ও কাশ্মীরের বারামূল্লা জেলায় গুলমার্গ অবস্থিত।

পৌঁছানোর উপায়

বিমান মাধ্যমে
গুলমার্গের নিকটবর্তী বিমানবন্দর হল শ্রীনগর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, শহর থেকে প্রায় 58 কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। গাড়ির মাধ্যমে বিমানবন্দর থেকে শ্রীনগরে পৌঁছাতে প্রায় দেড় ঘন্টা সময় লাগে।

রেল মাধ্যমে
নিকটবর্তী প্রধান রেলওয়ে স্টেশন হল জম্মু তাওয়াই- যেটি গুলমার্গকে, ভারতের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলির সঙ্গে সংযুক্ত রেখেছে। স্টেশনটি প্রায় 347 কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। সেখান থেকে গাড়ির মাধ্যমে গুলমার্গে পৌঁছাতে প্রায় আট ঘন্টা সময় লাগে।

সড়ক মাধ্যমে
জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্য সড়ক পরিবহন বাসগুলি গুলমার্গ ও শ্রীনগরের মধ্যে চলাচল করে। শ্রীনগর থেকে, যে কেউ অনেক বাস পেয়ে যাবেন যেগুলি এই অঞ্চলের প্রধান শহর ও নগরগুলির মধ্যে দিয়ে চলাচল করে।

গুলমার্গ পরিদর্শনের সেরা সময়

গুলমার্গ পরিদর্শনের সেরা সময় হল মে থেকে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে। স্কিয়ার-রা তুষারপাতের দৃ্শ্য দেখার শ্রেষ্ঠ সুযোগ নিতে নভেম্বর ও ফেব্রুয়ারী মাসে পরিদর্শনে যেতে পারেন।

গুলমার্গের উপর আরোও তথ্য

গুলমার্গ কত উচ্চতায় অবস্থিত?
গুলমার্গ 2,730 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত।

গুলমার্গে তাপমাত্রার পরিসীমা কি?
গ্রীষ্মকালে তাপমাত্রা 10 ডিগ্রী সেলসিয়াস থেকে 37 ডিগ্রী সেলসিয়াসের মধ্যে ওঠানামা করে। শীতকালে তাপমাত্রা সাধারণত -8 ডিগ্রী সেলসিয়াস থেকে 11 ডিগ্রী সেলসিয়াসের মধ্যে থাকে।

* সর্বশেষ সংযোজন : July 13, 2015

Published On: Monday, July 13th, 2015