Quantcast

ক্যাঙ্গো কেভস, দক্ষিণ আফ্রিকা

ক্যাঙ্গো কেভস-দক্ষিণ আফ্রিকার একটি প্রাকৃতিক ল্যান্ডমার্ক

পুরাকালের ক্যাঙ্গো গুহা, তার ব্যাপক কুঠরি ও সুড়ঙ্গপথের সঙ্গে ভ্রমণার্থীদেরকে বিমোহিত করে তোলে। এই ছাঁচসমন্বিত গুহাগুলির মধ্যে সুবিশাল সভাগৃহ ও সুউচ্চ গঠন রয়েছে, যা বিস্ময়কর এক ধারনা বা অনুভূতির আহ্বান জানায়। গুহাগুলির উৎপত্তির মধ্যে একটি রহস্য রয়েছে। তবে, লোকেরা মনে করেন যে এই গুহাগুলি সর্বপ্রথম আবিষ্কার করেন জ্যাকোবাস ভ্যান জীল নামে একজন স্থানীয় কৃষক, যার নামানুসারে প্রথম কুঠরিটির নামকরণ করা হয়। যদিও এই জনপ্রিয় ধারণাকে সমর্থন করার স্বপক্ষে কোনও যুক্তিযুক্ত প্রমাণ মেলে নি। অনেক গাইডের মধ্যে প্রথম পরোদস্ত্তুর গাইডের অবদানে ছিলেন শ্রী জনি ভ্যান ওয়াস্যেনায়ের। তিনি ক্যাঙ্গো 1 এলাকা মানুষদের প্রদর্শন করান এবং অনেক কুঠরি উন্মুক্ত হয়। প্রকৃতপক্ষে, এই গুহাগুলি প্রস্তর যুগের গোড়া থেকে জনবসতির জন্য সুপরিচিত। প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষণা দ্বারা উদ্ভূত হয়েছে যে গুহাগুলি একটি দীর্ঘ সময়ের জন্য, প্রায় 80,000 বছরেরও বেশি সময় ধরে মানুষের আশ্রয়স্থল ছিল।

কর্তৃপক্ষ দু’ধরনের সফর প্রস্তাবায়িত করে :

ক্যাঙ্গো কেভস-এ ঐতিহ্যবাহী সফর

এই সফর হল একটি সাধারণ মানের সফর এবং এর সময়সীমা হল 60 মিনিট। আপনি গুহার ভিতরে প্রবেশ করে বর্ধিত আর্দ্রতার এবং গুহার অভ্যন্তরীণ উষ্ণতার দরুণ চাপ অনুভব করবেন।গুহার মধ্যে দুর্গন্ধ বিরাজ করে। এর কারণ হল গুহার মধ্যে বসবাসকারী বাদূড়। এই সফরের মধ্যে বিভিন্ন বিভাগ অন্তর্ভূক্ত রয়েছে।

  • ভ্যান জীল-এর সভাগৃহ : কুঠরিটি মনোরম স্ট্যালাকটাইট উদ্ভাসিত করে, ওরফে “আউডৎসহুর্ন-এর শুষ্ক তামাক পাতা” চুনাপাথরের ছাদ থেকে ঝুলে রয়েছে। 90-মিটার-দীর্ঘ সভাগৃহটি 100 মিটারের চুনাপাথরের ছাদের সঙ্গে বৈশিষ্ট্যযুক্ত রয়েছে। সভাটির উজ্জ্বলতম বৈশিষ্ট্য হল ক্লিওপেট্রার সূচক, ইন্দ্রীয় নালী এবং একটি মহান ক্যাথিড্র্যালের যাজকসম্প্রদায়।
  • বোথার সভাগৃহ : বোথার সভাগৃহটি, 500,000-বছরের প্রাচীন পিসার হেলানো টাওয়ারের বৃহত্তম গঠন, 130 মিটর উচ্চ স্তম্ভ, ম্যাডোনা ও শিশু গঠন, মন্দির উপস্থাপনা, ভারী নাট্যমঞ্চের যবনিকা, প্রস্তরীভূত ক্রন্দনশীল উইলো বৃক্ষ ও সিংহাসন কক্ষ। স্টোন রুম বা শিলাবৎ কক্ষে কিছু ছোট গঠনও রয়েছে – একি অতি প্রাচীন গুহা মানবের আবক্ষ মূর্তি; একটি কেশ আবৃত প্রকান্ড হাতি, ছাদের প্রতিকূলে একটি প্রস্তরীভূত মাছ সাঁতার কাটছে।
  • রেনবো চেম্বার : বোথার সভাগৃহ থেকে আপনি বেরিয়ে এসে, রেনবো চেম্বারে পৌঁছানোর জন্য সিঁড়িতে উঠুন। আলোর উদ্ভাসিত দ্যূতিগুলি ভুতুড়েময়। আপনাদের মধ্যে কেউ কেউ নিজেদেরকে “দ্য মমি রিটার্ন্স” চলচ্চিত্রের নায়ক বা নায়িকা, যা আপনি একটি মিশনে হওয়ার অনুভূতি অনুভব করতে পারেন। এখানকার এই এলাকায় উল্লিখিত বাইবেলের অধ্যায়গুলি লক্ষ্য করতে পারেন, এক উন্মুক্ত পারিবারিক বাইবেল, একটি পরীর সম্প্রসারিত হারানো পাখনা ও নামকরণের পবিত্র জলপাত্রও দেখতে পেতে পারেন।
  • ব্রাইডাল চেম্বার বা বিবাহোৎসব কুঠির : ব্রাইডাল চেম্বার বা বিবাহোৎসব কুঠির-এ 14-টি স্তম্ভ যুক্ত বিবাহ শয্যা এবং নিম্ন ছাদ থেকে ক্রমাগত ফোঁটা ফোঁটা করে লম্বা দন্ড থেকে চুঁইয়ে পড়া স্ট্যালাকটাইট সক্রিয় রয়েছে।

এছাড়াও আপনার ঐতিহ্যবাহী সফরের মধ্যে আপনি একটি আনন্দময় আলোকসজ্জা দিয়ে প্রাণবন্ত ফেয়ারীল্যান্ড চেম্বার এবং স্বচ্ছ স্ট্যালাগমাইটের কুঠিরের সঙ্গে ড্রাম রুমও যোগ করতে পারেন।

ক্যাঙ্গো কেভস রোমাঞ্চকর সফর

এই 90 মিনিটের সফর সকলের জন্য এক কাপ চায়ের সম নয়। যদি আপনি গর্ভবতী হন অথবা আপনি যদি নিম্নলিখিতরূপে বর্ণিত যে কোনও শারীরিক অসুস্থতাসম্পন্ন হন, তবে আপনি এই রোমাঞ্চকর সফর থেকে বিরত থাকুন; যেমন – উচ্চ রক্তচাপ, আ্যজমা বা শ্বাসকষ্ট, ক্ল্যাসট্রোফোবিয়া বা যে কোনও পেশীর সমস্যা। ঐতিহ্যবাহী সফরের আদ্যস্থল থেকে শুরু করে, রোমঞ্চকর সফর আপনাকে গুহার গভীরে অনুসন্ধানে নিয়ে যায়। 30 মিনিটের এই রোমাঞ্চকর সফর আপনাকে জ্যাকবের সিঁড়িতে নিয়ে যায়, যা প্রায় 200-টিরও বেশি ধাপ সমন্বিত। যা আবার ঘটনাস্থলের অভ্যন্তরে গ্র্যান্ড হলের মধ্যে দিয়ে যেতে হয় এবং শেষের দিকে আবার নিম্ন-স্তরীয় লাম্বাগো এল্যেয় রয়েছে। প্রতিটি স্তরেই এই ভ্রমণযাত্রা কঠিন থেকে কঠিনতর হয়ে ওঠে। এই সফরের মধ্যে আপনি বিভিন্ন চেম্বার বা কুঠির ঘুরে আসতে পারবেন; যেমন রাজা সলোমোনের খনি, ডেভিল’স চিমনি, কফিন বা শবাধার, ডেভিল’স কিচেন ও ডেভিল’স পোস্ট বক্স।

উপদেশ : ক্রমবর্ধমান পর্যটনের দরুণ, রিজার্ভ বা সংরক্ষণের মাধ্যমে আপনার টিকিট বুক করাটা বাধ্যতামূলক।

ইবোলা সম্পর্কে সতর্কতা : স্বাস্থ্যমন্ত্রী আ্যরোন মোৎসোয়ালেদী, দক্ষিণ আফ্রিকার নাগরিকদের বারবার আশ্বস্ত করেছেন যে দেশের অভ্যন্তরে ভাইরাসের প্রবেশের পরীক্ষা করার স্থানগুলিতে কঠোর নজরদারি ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করা।

ক্যাঙ্গো কেভস মানচিত্র

ক্যাঙ্গো কেভস সম্পর্কে তথ্যাবলী

  • গুহাটি 1780 খ্রীষ্টাব্দে খুঁজে পাওয়া গিয়েছিল।
  • 1806 খ্রীষ্টাব্দে, সর্বপ্রথম গুহাটির ভি.ডি.ও রেকর্ডিং করা হয়েছিল।
  • 1890 খ্রীষ্টাব্দে, প্রবেশ দ্বার পেশ করা হয়।

ক্যাঙ্গো কেভস কোথায় অবস্থিত?

দক্ষিণ আফ্রিকায় আউডৎসহুর্ন থেকে 29 কিলোমিটার দূরে অবস্থিত, ক্যাঙ্গো গুহা হল একটি ভূগর্ভস্থ বিস্ময়। এগুলি সোয়ার্টবার্গ পর্বতমালার নিকটে চুনাপাথরের শৈলশ্রেণীতে অবস্থিত। নিকটবর্তী জর্জ বিমানবন্দরটি, (ভায়া N-12 এবং R-328)-এর মাধ্যমে গুহা থেকে 90.1 কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

ক্যাঙ্গো কেভস পরিদর্শনের সেরা সময়

যেহেতু গুহাটির তাপমাত্রা সারা বছরই 18 ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড থাকে, তাই বছরের যে কোনও সময় ক্যাঙ্গো গুহা পরিদর্শনে যাওয়া যেতে পারে।

ক্যাঙ্গো কেভস দর্শনের সময়

25-শে ডিসেম্বর ব্যতীত, বছরের প্রতিদিনই গুহাটি খোলা থাকে।

  • ঐতিহ্যবাহী সফরটি সকাল 9:00-টা. থেকে বিকেল 4:00-টে পর্যন্ত সঞ্চালিত হয়।
  • রোমাঞ্চকর সফরটি সকাল 9:30-টা. থেকে বিকেল 3:30-টে পর্যন্ত সঞ্চালিত হয়।

বি: দ্র: - প্রতি ঘন্টায় সফরের জন্য রওনা দেওয়া হয়।

প্রবেশ মূল্য

দুই ধরনের টিকিট উপলব্ধ রয়েছে, একটি ঐতিহ্যবাহী সফরের জন্য এবং অন্যটি রোমাঞ্চকর সফরের জন্য :

  • ঐতিহ্যবাহী সফরের জন্য : প্রাপ্তবয়স্কের টিকিটের মূল্য (দক্ষিণ আফ্রিকান র্যা ন্ড) R 85, শিশুদের জন্য টিকিটের মূল্য R 50.
  • রোমাঞ্চকর সফরের জন্য : প্রাপ্তবয়স্কের টিকিটের মূল্য R 105, শিশুদের জন্য মাথা পিছু R 65.

বি: দ্র: - এই মূল্য 1-লা জুলাই, 2015 থেকে 30-শে জুন, 2016 পর্যন্ত বৈধ।

পর্যটন সম্পর্কিত তথ্য

ক্যাঙ্গো কেভস-এর স্থানাঙ্ক কি কি?

33.3930° S (ডিগ্রী দক্ষিণ), 22.2150° E (ডিগ্রী পূর্ব)।

ক্যাঙ্গো কেভস-এর নিকটবর্তী আকর্ষণীয় পরিদর্শনমূলক স্থানগুলি কি কি?

সোয়ার্টবার্গ গিরিপথ, ক্যাঙ্গো বন্যপ্রাণী খামারবাড়ি, হাইগেট অস্ট্রিচ প্রদর্শনী খামার, আ্যনিসবার্গ প্রাকৃতিক সংরক্ষণ এবং রাস্ট-ঈন-ভ্রেডে জলপ্রপাত।

* সর্বশেষ সংযোজন : December 16, 2015

Published On: Wednesday, December 16th, 2015